For a better experience please change your browser to CHROME, FIREFOX, OPERA or Internet Explorer.

ভাসানচর হতে পারে আধুনিক মানের কোয়ার্রেন্টাইন

বর্তমানে মাতৃভূমির যে অবস্থা সে জায়গা থেকে কেটে উঠতে হলে সরকারকে অবশ্যই কিছু কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে হবে। বিষয়গুলো সরকারের মন্ত্রী মহল যেভাবে পাতলা করে দেখতেছে আগেকার দিনে মানুষের পাতলা পায়খানা হলেও এতো হাল্কাভাবে নিতোনা!

আমাদের মত উন্নয়নশীল দেশের পক্ষে দিনে দিনে হসপিটাল অথবা সন্দেহভাজন পাবলিকদের জন্য আলাদা করে উপযুক্ত কোয়ারেন্টাইন করাও সম্ভবনা। এ জায়গা থেকে সরকার রোহিঙ্গা স্থানান্তরের জন্য নোয়াখালীর ভাষানচরে প্রায় ৬৫ বর্গকিলো জায়গা জুড়ে যে বসত করেছে সে জায়গা খুব অনায়াশেই প্রায় লাখ খানেক মানুষকে আশ্রয় দেওয়া সম্ভব।

যেহেতু আমাদের দেশ ঘনবসতিপূর্ন একটি দেশ, যেখানে প্রতি বর্গকিলোমিটারে প্রায় ১১ হাজার মানুষের বসবাস গড়ে, যেখানে চাইলে কোন ব্যক্তিতে আলাদা আলাদা করে কোয়ারেন্টাইন করা সম্ভবনা সরকারীভাবে। স্থানকাল এবং পরিবেশ বেধে দেশের আবাসিক হোটেলগুলোকেও কোয়ারেন্টাইন হিসেবে ব্যবহার করা যাচ্ছেনা, যেমনটা করছে উন্নত দেশগুলো।

এক কথায় বর্তমান সংকট নিরসনে ভাষানচরের রোহিঙ্গা ক্যাম্পকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আন্ডারে কোয়ারেন্টাইন এবং করোনা চিকিৎসার জন্য হসপিটাল হিসেবে ঘোষনা করতে পারে। সেই সাথে পর্যাপ্ত ঔষধ ও খাবার এবং প্রয়োজনী মেডিকেল ইন্স্ট্রুমেন্ট সব সেনাবাহিনী অধীনস্থ নিয়ন্ত্রন করে পর্যাপ্ত ডাঃ এবং নার্স নিশ্চিত করতে পারেন।

এ ক্ষেত্রে যেমন আক্রান্ত রোগীরা পাবে নিরাপদ পজিশন এবং সুস্থ ব্যক্তিরাও থাকবে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নাগালের বাইরে। ভাষানচরের বর্তমান পরিবেশ খুবি চমৎকার। সরকার চাইলেই এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় এই জায়গাটি ব্যবহার করতে পারে। সরকারে উচ্চ মহলের দৃষ্টি আরর্ষন করছি, খামখেয়ালি না করে দেশের মানুষের বৃহৎ স্বার্থে সময়উপযোগী সিদ্ধান্ত নিন। নতুবা সাধারন পাবলিক যেমন করে অসচেতন হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে তাতে করে দেশে লাশের হিড়িক পড়বে। আল্লাহ মাফ করুক, যদি দেশে সত্যি এমন কিছু শুরু হয় আমাদের বাঁচার কোন পথ থাকবেনা, যেখানে বিশ্বের ফার্স্টওয়ার্ল্ড কান্ট্রিগুলো হিমসিম খাচ্ছে সেখানে আমার বাংলা তো সোজা হয়েই দাঁড়াতে পারবেনা।

তারই সাথে সাধারন মানুষেরও নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হতে হবে। জাতী হিসেবে আমরা অত্যন্ত আবেগীয় জাতি। আমরা বিবেকের চেয়ে আবেগ বেশি কাজে লাগাই সব কাজে। নিজে বাঁচুন, পরিবার সমাজ, তথা রাষ্ট্রকে বাঁচতে দিন।

আল্লাহ সবাইকে হেফাজত করুক।

Top